1. multicare.net@gmail.com : news : VOICE CTG NEWS
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
আজ থেকে গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু মোরেলগঞ্জে স্পন্দনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালন ঝিকরগাছায় মৎস্যজীবী লীগের গাছের চারা ও করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ধামরাইতে পূর্বশত্রুতার কারনে গাছ কর্তন হরিপুরে ছেলের লাঠির আঘাতে বাবার মৃত্যু ভাষা শহীদ বিদ্যানিকেতন স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নামে ঘুষ নেওয়ার অভিযোশিক্ষক নাটোরে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা গ্রহীতাদের উপচে পড়া ভিড় চিরিরবন্দর থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১৪ কেজি ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার র‌্যাব-১৩ রংপুর কর্তৃক হেরোইনসহ ২ জন নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোড়েলগঞ্জে বিএনপির উদ্যোগে করোনা সামগ্রী অর্থ সহায়তা প্রদান

আ.লীগকে নিয়ে বিএনপি জামাতের ষড়যন্ত্র এখনো চলছে মানববন্ধনে হুইপ আতিক

  • প্রকাশিত: শনিবার, ২১ আগস্ট, ২০২১
  • ৩২ বার পড়া হয়েছে

খন্দকার রোমান শাহ প্রতিনিধি
শেরপুর সদর শেরপুর
বঙ্গবন্ধুর কণ্যা বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গ্রেনেড হামলা ও বাংলাদেশ মহিলা আ.লীগ সভানেত্রী আইভি রহমান সহ ২৪ জনকে হত্যার প্রতিবাদে শেরপুরে প্রতিবাদী মানববন্ধন করেছে জেলা আ.লীগ। ২১ আগষ্ট শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় থানার মোড় ও নিউমার্কেট অভিমুখে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন তারা। মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরপুর জেলা আ.লীগের সভাপতি ও জাতীয় সংসদের হুইপ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আতিউর রহমান আতিক এমপি।এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হুইপ আতিক বলেন, আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার জন্যই ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলা করা হয়েছিল। খুনিরা ভেবেছিলো ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট যেভাবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছিলো সেভাবে শেখ হাসিনাকে হত্যা করে আওয়ামী লীগকে চিরতরে নিচিহ্ন করে দেবে।
তিনি আরো বলেন, গ্রেনেড হামলার মাষ্টারমাইন্ড তারেক রহমানকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে এনে তাকেসহ হামলার সাথে জড়িত সকল আসামীর দন্ডাদেশ কার্যকর করার জোড়ালো দাবি জানান।
জেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক বিজ্ঞ পিপি এডভোকেট চন্দন কুমার পাল বলেন, ২০০৪ সালের ২১ আগষ্টে শেখ হাসিনাকে মেরে ফেলার জন্য যৌথ্যভাবে এই গ্রেনেড হামলা চালায় বিএনপি ও জামায়াত। সে হামলায় ২৪ জন নেতা কর্মী মারা গেলেও আল্লাহ অশেষ মেহেরবানিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে যান।
তিনি আরো বলেন, এই গ্রেনেড হামলার মূল ইন্দনদাতা হাওয়া ভবনের মালিক ও খালেদা জিয়ার ছেলে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। হামলায় জড়িত সকল আসামীর দন্ডাদেশ কার্যকর করার দাবি জানান তিনি।
মানববন্ধনে শেরপুর জেলা আ.লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক বেলাল হোসেন এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম।
এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,শেরপুর জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব ফখরুল মজিদ খোকন, এডভোকেট মোসাদ্দেক ফেরদৌসী, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সুব্রত দে ভানু, নাজিমুল হক নাজিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বশিরুল ইসলাম সেলু, দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল-মামুন, উপ-দপ্তর সম্পাদক বিনয় কুমার সাহা, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. এম এ বারেক তোতা, মহিলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসরিন বেগম ফাতেমা, শহর আ.লীগের সভাপতি এডভোকেট আবুল কাশেম জিপি, সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্ত, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শোয়েব হাসান শাকিল, সিনিয়র সহ-সভাপতি বর্ষণ কারুয়া, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।
এছাড়াও শেরপুর জেলা আ.লীগ, মহিলা আ.লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

সর্বশেষ খবর