1. multicare.net@gmail.com : news : VOICE CTG NEWS
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
আজ থেকে গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু মোরেলগঞ্জে স্পন্দনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালন ঝিকরগাছায় মৎস্যজীবী লীগের গাছের চারা ও করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ধামরাইতে পূর্বশত্রুতার কারনে গাছ কর্তন হরিপুরে ছেলের লাঠির আঘাতে বাবার মৃত্যু ভাষা শহীদ বিদ্যানিকেতন স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নামে ঘুষ নেওয়ার অভিযোশিক্ষক নাটোরে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা গ্রহীতাদের উপচে পড়া ভিড় চিরিরবন্দর থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১৪ কেজি ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার র‌্যাব-১৩ রংপুর কর্তৃক হেরোইনসহ ২ জন নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোড়েলগঞ্জে বিএনপির উদ্যোগে করোনা সামগ্রী অর্থ সহায়তা প্রদান

রাস্তার অভাবে দুর্ভোগে শত শত মানুষ

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৮ আগস্ট, ২০২১
  • ৬২ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহ (গফরগাঁও)প্রতিনিধিঃ মাহফুজুর রহমান
ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁওয়ে দত্তের বাজার ইউনিয়নের কন্যামন্ডল থেকে শুরু করে মধ্যপাড়া দিয়ে আওয়ামি লীগ সভাপতি শাহানশাহ খান বুলবুল সাহেবের বাড়ি দিয়ে ময়রা পর্যন্ত একটি মাত্র রাস্তার জন্য প্রায় ৩ হাজার মানুষের দূর্ভোগ। গফরগাঁও উপজেলার কন্যামন্ডল থেকে দত্তের বাজার সহ কয়েক মহল্লার মানুষের যোগাযোগ বিছিন্ন।

এই কয়েকটি এলাকা পর্যন্ত রাস্তাটি সংস্কার বা চওড়া না হওয়ায় চলাচলের একেবারে অনুপযোগী। বর্ষা মৌসুমে সামান্য বৃষ্টিতেই হাঁটু সমান কাদায় মুড়িয়ে চলতে হয় এলাকাবাসীর। গ্রামের গুরুত্বপুর্ণ এই রাস্তাটি এখন ব্যবহারের অনুপযােগী হয়ে পড়েছে। দীর্ঘ সময় ধরে সংস্কারবিহীন থাকায় বর্তমানে এ সড়কের বেহাল দশা।

এক যুগেরও বেশি সময় ধরে এলাকাবাসী সংষ্কারের দাবী জানিয়ে আসলেও এখনো হয়নি কাঙ্খিত সংস্কার কাজ। এভাবে বছরের পর বছর অতিবাহিত হলেও সড়কটির বিষয়ে এখনো দেখা যায়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নজরদারী। বর্তমান সরকারের আমলে দেশে কাঁচা রাস্তা নেই বললেই চলে, এই সরকার উন্নয়নের রোল মডেল। ইতিমধ্যে দেশের অলিতে-গলিতে সরকারের উন্নয়ন ছোঁয়া ছড়িয়ে পড়েছে।

কিন্তু এই একটি একমাত্র মাটির সড়কটি যেন অভিভাবকহীন। বর্ষা আসলেই ওই এলাকার কয়েক হাজার বাসিন্দার চলাচলে পড়তে হয় সীমাহীন দুর্ভোগে। রাস্তার অবস্থা দেখে মনে হয় এ যেন আদিম যুগে বসবাস। সরে জামিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় তিন কিলোমিটার দৈর্ঘ্যর রাস্তাটি কাদাতে ভরপুর যেন চাষের জমিতে পরিণত হয়েছে। অথচ এ সড়কেই প্রতিনিয়ত হাজারো মানুষ চলাচলা করতে হয়।

সামান্য বৃষ্টিতেই হাঁটু সমান কাদায় মাড়িয়ে বাজারে-ঘাটে যাতায়াতে হয় নানা অসুবিধা। এভাবে হাঁটু সমান কাদা নিয়ে মধ্যবয়সীরা বহু কষ্টে চলাচল করলেও বৃদ্ধ এবং শিশুরা চলাচলে আরো বেশি অনিরাপদ। এ পরিস্থিতিতে স্কু্ল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের চলাফেরা চরম ঝুঁকিতে।

বিকল্প রাস্তা না থাকায় দৈনিক এই সড়ক দিয়ে কৃষক যেতে হচ্ছে ক্ষেত-খামারে এবং বিভিন্ন শ্রেণী প্রেশার মানুষদের নানা কাজে রাস্তাটি ব্যবহার করতে হয়। এছাড়া বহু বসত-বাড়ি থাকায় বিভিন্ন বয়সের মানুষ ওই রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করতে হচ্ছে। কিন্তু রাস্তাটির অতিরিক্ত কাদার কারনে চলাচলে অযোগ্য হয়ে পড়ায় সীমাহীন দুর্ভোগে এলাকার হাজারো মানুষ।

এদিকে দীর্ঘ এক যুগ পার হলেও রাস্তার সংস্কার কাজ না করায় জনপ্রতিনিধিদের উদাসীনতা আর অবহেলাকে দ্বায় করছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। দৈনিক আলোকিত পত্রিকাকে এলাকার বাসিন্দা আফিফ মাহমুদ রিমন নামে এক যুবক জানান, আমাদের চলাচলের মূল রাস্তাটির অবস্থা খুবই নাজুক। রাস্তার মধ্যে হাঁটু সমান কাদায় আমাদের হাঁটা চলা দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন যাবত আমরা এলাকাবাসীরা কষ্ট ভোগ করছি। আমি এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

সর্বশেষ খবর