1. admin@www.doinikalokitopotrika.com : দৈনিক আলোকিত পত্রিকা :
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০২:৪২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
গোবিন্দগঞ্জে জোরপূর্বক চলাচলের রাস্তা কেটে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করার অভিযোগ। মেহেরপুরে লকডাউনের ৩য় দিনে আরও ৬০ জন করোনায় আক্রান্ত। সাংবাদিকদের সাথে হারাগাছ পৌর মেয়র এরশাদের মতবিনিময় নওগাঁর আত্রাইয়ে চেয়ারম্যানের সহযোগিতায় লকডাউন বিধি নিষেধ অমান্য করে বিয়ে অনুষ্ঠিত লালপুরে কঠোর লকডাউনের ৩য় দিনে ৮ ব‍্যক্তিকে অর্থদণ্ড সাতক্ষীরা হেল্পলাইন ফাউন্ডেশন’র উদ্ধোগ্যে মাস্ক বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত শ্রীমঙ্গল খাদ্য অধিদপ্তর পরিচালিত ওএমএস এর ৩০ টাকা কেজি চাল বিক্রি কার্যক্রম শুরু মোরেলগঞ্জ পৌরসভায় নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ও এম এস কার্যক্রমের উদ্বোধন। কোভিড-১৯ স্যাম্পল কালেকশন কার্যক্রম এগিয়ে যাচ্ছে ঈদগাঁওতে

আর্থিক সহযোগিতা পেলে বাঁচবে ৭ বছরের শিশু

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৩ জুলাই, ২০২১
  • ৪০ বার পড়া হয়েছে

মোহাম্মদ রিয়াজ হোসেন
সি.স্টাফ রিপোর্টার ভোলা

সুন্দর এ পৃথিবীতে সবাই বাঁচতে চায় , আর আমাদের সকলের মত বাঁচতে চায় শিশু রাহিম, বয়সঃ ৭ বছর , শিশু বয়সে ছেড়ে যেতে চায়না মায়ের আঁচল , মায়ের ভালবাসা স্নেহমমতা । কিন্ত বিধাতার লেখন হয়না খন্ডন এমনটি জুঁটেছে শিশু রাহিমের ভাগ্যে । রাহিমের বসবাস দ্বীপ জেলা ভোলার ঐতিহ্যবাহী বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী ৩ নং ওয়ার্ডের উদয়পুর রাস্তার মাথা ভোলা টু চরফ্যাশন মহাসড়কের দক্ষিণ পাশে নানার বাড়িতে । সর্বনাশী মেঘনার ছোবলে রাহিমের বাবার পৈত্তিক বসতভিটা মেঘনার পেটে ঘ্রাস হয়ে যায় । আর এ কারনে নানার বাড়িতে রাহিমের পরিবারের বসবাস । রাহিমের মা সুলতানা বেগম জানান , বিগত বছর দু’য়েক আগে রাহিমের শরীরে অসাবধানতা বশতঃ ফুটন্ত গরম পানি পরে রাহিমের বুকে, পেটে পিঠে , হাটুর নিচের কিছু অংশ ঝলসে যায় , একপর্যায় চিকিৎসার পর ঝলসানো শরীরের সেই চামড়া, ঘা, শুকিয়ে অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয় । কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পর এক সময় রাহিম হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে ঝিমিয়ে পরে , অবস্থার বেগতিক দেখে তার মা সুলতানা বেগম তাকে ভোলা সদর একটি প্রাইভেট ডায়োাগনেস্টিক সেন্টারে ঢাকা থেকে আগত একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে ছেলের চিকিৎসার জন্য শরণাপন্ন হোন । ডাক্তার আনুষঙ্গিক পরিক্ষা নীরিক্ষার পর রিপোর্ট দেখে বলেন রাহিমের হার্টের ভাল্ব নষ্ট হয়ে গেছে , তাকে বাঁচাতে ও চিকিৎসা বাবদ ২ লক্ষ টাকা খরচ হবে । ছেলের এমন করুন অবস্থা দেখে রাহিমের মা এ প্রতিবেদকে বলেন আমরা গরীব মানুষ, রাহিমের বাবা দিনমজুর মানুষ , এতটাকা কোথায় পাবো ছেলের চিকিৎসা করতে ? এমতাবস্থায় কোন উপায় না পেয়ে রাহিমের মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী , স্থানীয় এম পি মহোদয় , জেলাপ্রশাসক , দেশের সকল বিত্তবান ও আমজনতার কাছে সহযোগীতার আবেদন জানান , সকলে যেন একটু সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় আমার ছেলে রাহিমের জন্য , সকলে যেন একটু সহযোগীতা করে রাহিমকে এ পৃথিবীর আলোর মুখ দেখাতে পারে ।
রাহিমের পরিবারের মোবাইল নংঃ
০১৩০১৭৩৬৩৪০ ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত