1. multicare.net@gmail.com : news : VOICE CTG NEWS
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
আজ থেকে গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু মোরেলগঞ্জে স্পন্দনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালন ঝিকরগাছায় মৎস্যজীবী লীগের গাছের চারা ও করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ধামরাইতে পূর্বশত্রুতার কারনে গাছ কর্তন হরিপুরে ছেলের লাঠির আঘাতে বাবার মৃত্যু ভাষা শহীদ বিদ্যানিকেতন স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে চাকরি দেওয়ার নামে ঘুষ নেওয়ার অভিযোশিক্ষক নাটোরে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা গ্রহীতাদের উপচে পড়া ভিড় চিরিরবন্দর থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১৪ কেজি ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ১ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার র‌্যাব-১৩ রংপুর কর্তৃক হেরোইনসহ ২ জন নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার মোড়েলগঞ্জে বিএনপির উদ্যোগে করোনা সামগ্রী অর্থ সহায়তা প্রদান

মানুষের দোষত্রুটি ছড়ানো মহাপাপ

  • প্রকাশিত: শনিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ২০ বার পড়া হয়েছে

মুহাম্মদ শফিকুর রহমান :

মানুষমাত্রই ভুল করে। দোষত্রুটি কার নেই! কমবেশি সবার আছে। প্রশ্ন হলো, অন্যের দোষত্রুটি ছড়াতে হবে কেন? জনে জনে এসব বলে বেড়ানোর লাভ কী? ফেসবুকে ওমুক ভালো নয়, তমুক ভালো নয়, অমুকের মেসেজ ওয়াল থেকে স্ক্রিনশট নিয়ে পোস্ট দেওয়ার অর্থ কী? আপনি যা করলেন, একবারও ভেবে দেখেছেন এর পরিণাম কি? দোষত্রুটির নামে যা ছড়ালেন, সেটা মিথ্যা বা ভুল হতে পারে। তাহলে গিবত গাওয়ার গোনাহ হবে। সুরায়ে হুজরাতে বলা হয়েছে, আর তোমাদের কেউ কারও গিবত করবে না। তোমাদের কেউ কি নিজের মৃত ভাইয়ের গোশত খাওয়া পছন্দ করবে? নিশ্চয় তোমরা তা ঘৃণা করবে। যদি সত্যিও হয়, তাহলেও তা প্রকাশ করা যাবে না। ফেসবুকে দেখা যায়, একে অন্যের দোষত্রুটি নিয়ে পোস্ট দিচ্ছে, যা অত্যন্ত কঠিন গোনাহ তো বটেই; উপরন্তু আখেরাতেও বিপদ আছে। হাদিসে এসেছে, ‘যে ব্যক্তি তার মুসলিম ভাইয়ের গোপন (অপরাধের) বিষয় গোপন রাখবে, আল্লাহ কেয়ামতের দিন তার গোপন (অপরাধের) বিষয় গোপন রাখবেন। আর যে ব্যক্তি তার মুসলিম ভাইয়ের গোপন বিষয় ফাঁস করে দেবে, আল্লাহ তার গোপন বিষয় ফাঁস করে দেবেন, এমনকি এ কারণে তাকে তার ঘরে পর্যন্ত অপদস্থ করবেন।’ (ইবনে মাজাহ : ২৫৪৬)। রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন ‘তোমরা মুসলমানদের দোষত্রুটি, ভুলভ্রান্তি খুঁজে বের করো না। যে ব্যক্তি অন্যের দোষ খুঁজে বেড়ায় ও প্রকাশ করে, স্বয়ং আল্লাহ তার দোষ প্রকাশ করে দেন। আর আল্লাহ যার দোষত্রুটি প্রকাশ করেন তাকে নিজের বাড়িতেই লাঞ্ছিত করেন।’ (আবু দাউদ : ৪৮৮০)। এই হাদিস দুটির মমার্থ বোঝা অত্যন্ত জরুরি। অন্য মানুষ তো দূরের কথা, নিজের দোষও কাউকে বলা যাবে না। হাদিসে নিজের দোষ ও অন্যকে বলতে নিষেধ করা হয়েছে। অনুমান করে নানা কথা বলা হয়, সেটাও বলা যাবে না। কারণ অনুমান মিথ্যা বা ভুল হতে পারে। হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা অনুমান করা থেকে বেঁচে থাক। কেননা, অনুমান সর্বাপেক্ষা মিথ্যা। আর তোমরা ছিদ্র অন্বেষণ করো না, সুপ্তদোষ অনুসন্ধান করো না, তোমরা পরস্পর লিপ্সা করো না, পরস্পর বিদ্বেষ পোষণ করো না, হিংসা করো না; পরস্পরে পশ্চাতে শত্রুতা করো না বরং তোমরা সবাই আল্লাহর বান্দা হিসেবে ভাই ভাই হয়ে থাক।’ (মুসলিম : ৬৩০৪)। ওমুক মেয়ের সঙ্গে ওমুকের কথা বলতে দেখলেন। আপনি অন্যদের বলে বেড়ালেন। তাদের মধ্যে খারাপ সম্পর্ক। অথচ আদৌ ব্যাপারটি তা নয়। কোরআনে বলা হয়েছে, ‘তাদের অধিকাংশ অনুমানেরই অনুসরণ করে, সত্যের পরিবর্তে অনুমান কোনো কাজে আসে না। তারা যা করে আল্লাহ সে বিষয়ে সবিশেষ অবহিত।’ (সুরা ইউনুস : ৩৬)। ‘তোমরা একে অপরের প্রতি দোষারোপ করো না এবং তোমরা একে অপরকে মন্দ নামে ডেকো না; ঈমানের পর মন্দ নামে ডাকা গর্হিত কাজ। হে মোমিনরা! তোমরা বহুবিধ অনুমান করা থেকে দূরে থাক, কারণ অনুমান কোনো ক্ষেত্রে পাপ এবং তোমরা একে অপরের গোপনীয় বিষয় অনুসন্ধান করো না এবং একে অপরের পশ্চাতে নিন্দা করো না।’ (সুরা হুজুরাত : ১১-১২)। সব মানুষ সমান নয়। কেউ লম্বা, কেউ খাটো। কেউবা বেশি খায়। এ জন্য লম্বুটে, বেঁটে, খাদক কাউকে বলা যাবে না। নামের সঙ্গে এসব জুড়ে দিলে গোনাহ হবে। অন্যে কী করে, কোথায় যায়, কার সঙ্গে মেশে এসব নয়। আমি যা করি তা কোরআন-সুন্নাহবিরোধী কি-না, সবাইকে সবার আগে সে চিন্তা করা দরকার। এতেই মঙ্গল, অন্যের দোষত্রুটি খোঁজার চেয়ে।

লেখক : ইসলামি গবেষক

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

সর্বশেষ খবর